গোপালগঞ্জে নকল প্রসাধনীর কারখানা জব্দ, মালিককে ১বছরের জেল ও ১লাখ টাকা জরিমানা

 

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
গোপালগঞ্জে নকল মেহেদী তৈরির কারখানা ও ১০লাখ টাকার নকল প্রসাধনী জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। কারখানার মালিককে ১বছরের জেল ও ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট শেখ সালাউদ্দীন দিপু।
আজ বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোপালগঞ্জ শহরের হক মঞ্জিল ভবনে জুয়েল এন্টার প্রাইজে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট শেখ সালাউদ্দীন দিপু অভিযান চালিয়ে প্রায় ১০লাখ টাকার নকল প্রসাধনী জব্দ করে।
নকল প্রসাধনীর মধ্যে রয়েছে, অনুমোদনহীন কেমিক্যাল, ট্যালকম পাউডার, ক্রিম, বেবি লোশন, বেবি অয়েল, অলিভ অয়েল, কুমারিয়া হেয়ার অয়েল, হ্যান্ড সানিটাইজার, নকল মাস্ক, মেহেদীসহ অন্যান্য দেশী-বিদেশী ব্রান্ডের প্রসাধনী।
এ সময় নকল প্রসাধনী তৈরির দায়ে কারখানা মালিক জুয়েল রায়কে ১ বছরেরর বিনাশ্রম কারাদন্ড, ১লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের জেল দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। কারখানা মালিক জুয়েল রায় গোহাটা পূর্বপাড়া এলাকার নিখিল রায় এর ছেলে।
ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট শেখ সালাউদ্দীন দিপু বলেন, বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের পণ্য নকল করে এখানে তৈরি করা হচ্ছিলো। সর্বত্র শহরে ছড়িয়ে পড়া এসব ভেজাল কসমেটিকস অত্যন্ত ক্ষতিকর। এ অপরাধে কারখানার মালিক জুয়েল রায়কে ১বছরের জেল ও ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। কারখানা থেকে ১০লাখ টাকা মূল্যের নকল প্রসাধনী জব্দ করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভোক্তা অধিকারের সহকারী পরিচালক শামীম হাসান।

নোটিশ

অনুমতি ব্যাতিত এই সাইটের কোন লেখা বা ছবি কপি করা নিষেধ, কপি করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।